বন্ধু, নাকি বন্ধুর চেয়ে একটুখানি বেশি- কিভাবে বুঝবেন?

‘মেয়ে, তুমি এখনও আমায় বন্ধু ভাবো কি? কখনও কি আমায় ভেবেছিলে বন্ধুর চেয়ে একটুখানি বেশি?’- তপুর গানের এই লাইন দুটির মতো অনেকেই হয়তো দ্বিধা-দ্বন্দ্বের ভেতর দিয়ে সময় পার করছেন। বন্ধুত্বের সম্পর্কটা অনেক সময় বন্ধুত্বের বেড়াজাল ভেঙে আরো বিস্তৃত হয়। এজন্য হয়তো দীর্ঘ দিনের বন্ধুত্ব নষ্ট হওয়ার ভয়ে আপনি আর এগোতে সা্হস পাচ্ছেন না। সে কি আমাকে শুধুই বন্ধু ভাবে, নাকি বেশি কিছু-এই সংশয় নিয়ে হয়তো আপনিই সম্পর্কটাকে আরো জটিল করে তুলছেন। সে হয়তো সচেতন বা অবচেতন মনে কিছু ইংগিত দিয়ে বোঝাচ্ছে যে সেও বন্ধুত্বের বেড়াজাল অতিক্রম করেছে।

  • যে মেয়েটা আপনাকে পছন্দ করে, সে কখনোই অন্য কোনো মেয়ের সামনে আপনার প্রশংসা করবে না। কারণ সেক্ষেত্রে তার সুযোগ কমে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।
  • যদি সে আপনার সকল ক্রাশ সম্পর্কে নেতিবাচক মন্তব্য করে, তাহলে সে আপনার নীরব প্রেমিকা হওয়ার সম্ভাবনা আরো বাড়িয়ে দেয়।
  • কোন মেয়ে যদি আপনার প্রেমে পড়ে, সে কখনোই অন্য কোনো ছেলের কথা ভাববে না। এজন্য আপনি যদি তাকে তার ডেট সম্পর্কে জানতে চান আর সে যদি ওই সম্পর্ক নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে তাহলে বুঝবেন আপনিই তার সন্তষ্টির জায়গা।
  • আপনার পছন্দের কাজগুলো যদি সেও করার চেষ্টা করে এমনকি অপটু হওয়া সত্ত্বেও তাহলে বুঝে নিবেন সে আসলেই আপনাকেই পছন্দ করে।
  • আর হ্যাঁ, সে যদি প্রায় সবখানেই যাওয়ার আগে আপনাকে সঙ্গে নিতে চায় তাহলে নিশ্চিত থাকুন সে আপনার বন্ধুর থেকেও বেশি কিছু।
  • মেয়েরা সবসময় তাদের ক্রাশের পছন্দ-অপছন্দ নিয়ে সূক্ষ্ম পর্যবেক্ষণ করে। আপনার জন্মদিনে আপনাকে কী উপহার দিতে হবে অথবা আপনার অনেক বিষয় সে আপনার থেকেও বেশি মনে রাখে তাহলেও বুঝবেন সে আপনাকে পছন্দ করে।
  • সবশেষে ইতিবাচক সাড়া হিসেবে ধরে নিতে পারেন- সে যদি সবসময় জানতে চায় আপনি কী ধরনের মেয়ে পছন্দ করেন।

কেউ যদি আপনাকে ভালোবাসে, সে অবশ্যই সেটা প্রকাশ করবে। আপনাকে শুধু সতর্কতার সঙ্গে পর্যবেক্ষণ করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *